fbpx
শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৩৭ অপরাহ্ন

iPhone 13 দিয়ে মোবাইল নেটওয়ার্ক ছাড়াও করা যাবে কল-মেসেজ।

তাইফুর ইসলাম / ২৫৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৩১ আগস্ট, ২০২১
iPhone 13 দিয়ে মোবাইল নেটওয়ার্ক ছাড়াও করা যাবে কল-মেসেজ। 1

82 / 100

iPhone 13 এ আসছে নতুন ফিচার- লো আর্থ অরবিট (LEO) স্যাটেলাইট কমিউনিকেশন কানেক্টিভিটি।

গ্রামের বাড়িতে নেটওয়ার্ক এর সমস্যা থাকবেই কথাটা জনপ্রিয় ও প্রচলিত। যদি গ্রামের প্রত্যন্ত এলাকাতেও নেটওয়ার্ক পাওয়া যেত কতই না ভালো হতো।iPhone 13 এ আসছে নতুন ফিচার- লো আর্থ অরবিট (LEO) স্যাটেলাইট কমিউনিকেশন কানেক্টিভিটি।এতে করে মোবাইল নেটওয়ার্ক এর অপ্রতুলতা সত্ত্বেও আপনি কল, মেসেজ করার সুযোগ পাবেন।

 

এই পরের মাসেই অভিষেক হতে পারে অ্যাপল এর নতুন iphone 13 এর। অনেকে নতুন এই মডেলে ক্যামেরা ও ব্যাটারি ডেভেলপমেন্ট এর কথা বললেও Ming-Chi Kuo (অ্যাপল অ্যানালিস্ট) এর ভাষ্যমতে, আইফোন ১৩ এর হার্ডওয়্যার এর পরিবর্তন আসছে যাতে এটি LEO স্যাটেলাইট এর সাথে যেকোনো সময় কানেক্ট হতে পারে। এটি প্রত্যন্ত অঞ্চলে ইউজারদের কল, মেসেজ করার জন্য প্রয়োজনীয় সার্ভিস দিয়ে থাকবে।

 

 

জানামতে, iphone 13 এ থাকতে পারে কাস্টমাইজড Qualcomm X60 চিপ। এই চিপের সাহায্যে লো-আর্থ অরবিট কানেক্টিভিটি ব্যবহার করা যাবে। Qualcomm তার X65 চিপ ব্যবহার করে মোবাইল ডিভাইসে n53 ব্যান্ডের মাধ্যমে স্যাটেলাইট সংযোগ প্রদানের জন্য গ্লোবালস্টারের সাথে কাজ করছে বলে জানা গেছে। যাইহোক, আইফোন 13 X60 মডেমের মাধ্যমেও অনুরূপ অভিজ্ঞতা পেতে পারে। এখানে LEO স্যাটেলাইট কমিউনিকেশন সার্ভিস প্রোভাইডার হিসেবে Globalstar এর নাম উঠে এসেছে যেহেতু এই কোম্পানি টেকনোলজি এন্ড সার্ভিস কভারেজের জন্য অ্যাপলের সাথে চুক্তি করতে ইচ্ছা প্রকাশ করেছে।

iphone 13

iphone 13

 

Globalstar ভয়েস সার্ভিস এর ক্ষেত্রে বহুবছর ধরে কাজ করে আসছে। এর ফলে, Globalstar স্যাটেলাইট কানেক্টিভিটি প্রোভাইডারের মাধ্যমে iPhone 13 সরাসরি সংযুক্ত হতে পারবে। 2022 সালের শুরুর দিকেই এই স্যাটেলাইট কমিউনিকেশন শুরু হয়ে যেতে পারে। কুও জানিয়েছেন, 5G প্রযুক্তি যে মিলিমিটার ওয়েভের মাধ্যমে চলে, একই ভাবে কৃত্রিম উপগ্রহের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করা যাবে।

তবে এই ধারণা কিন্তু আজকের নয়। ২০১৯ সালে ব্লুমবার্গের এক প্রতিবেদনে এই LEO স্যাটেলাইট কমিউনিকেশন কানেক্টিভিটি ফিচারের কথা বললেও তা ধামাচাপা পড়ে যায়৷ এখন এই পরিষেবার ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট কোনো অ্যাপ থাকতে হবে কিনা তা জানা যায়নি। এই মুহুর্তে এটাও স্পষ্ট নয় যে অ্যাপল নিয়মিত ভয়েস কল এবং মেসেজিংয়ের জন্য LEO স্যাটেলাইট কমিউনিকেশন কানেক্টিভিটি দেবে নাকি এটি কেবল তার ফেসটাইম এবং iMessage পরিষেবার মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবে। এছাড়াও গ্লোবাল মার্কেটে স্থান করে নিতেও বেশ বেগ পেতে হবে কারণ প্রত্যেকটি টেলিকম অপারেটরদের সেই স্যাটেলাইট কোম্পানির সাথে কাজ করতে হবে যাতে তাদের চলতি নেটওয়ার্ক এর বাইরেও সেই স্যাটেলাইট যেন কানেকশন দিতে পারে।

যদিও স্মার্টফোনে স্যাটেলাইট কানেক্টিভিটি নিয়ে যথেষ্ট সংশয় রয়েছে। এর আগে এলন মাস্কও একটি উদ্যোগ নিয়েছিলো পুরো বিশ্বে নেটওয়ার্ক ছড়িয়ে দেওয়ার। এলন মাস্কের Starlink ইন্টারনেট ব্যবহারের সময় গাছ, বিল্ডিং ও পোল থাকার কারণে স্পিড কমে যেতে দেখা গিয়েছিল। আর সেই কারণেই iPhone 13-তে স্যাটেলাইট কানেক্টিভিটি দেওয়ার আগে Apple কে আরও কাজ করতে হবে। এক্ষেত্রে, সবকিছু যদি ঠিক থাকলে আইফোন এর আগ্রহ আবারও শীর্ষে পৌঁছাবে, নিকটবর্তী কোনো প্রতিযোগী না থাকায় মার্কেট জনপ্রিয়তা পেতে সময় লাগবে না তাদের।

iphone 13 এ এই স্যাটেলাইট কানেক্টিভিটি ফিচার আসলে, নেটওয়ার্কের বাইরে থাকার সমস্যা অনেকটাই দূর হবে বলে আশা করা যায়।

 

ফেসবুকে পড়ুন।

 

শিমুল গাছের মূল চাষ করে কোটিপতি


আপনার মতামত লিখুন :

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ