fbpx
শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৩৭ অপরাহ্ন

স্বাস্থ্যকর পিৎজা

রিপোটারের নাম / ৮৯৫ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৬ নভেম্বর, ২০১৯
স্বাস্থ্যকর পিৎজা
স্বাস্থ্যকর পিৎজা

54 / 100

পিৎজা খাওয়া নিয়ে আজকাল খুব বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে। পুষ্টিবিদদের মতে এই যুগের তরুণ সম্প্রদায়ের পিৎজা-প্রিয় খাদ্যাভাস তাদের অস্বাস্থ্যকর ভবিষ্যতের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। তাঁদের বক্তব্য অসত্য নয়। জনপ্রিয় দোকানের থেকে কেনা পিৎজাতে ক্যালোরির পরিমাণ প্রচুর। তারসাথে তাতে স্যাচুয়েটেড ফ্যাটের প্রাচুর্য থাকে, আর থাকে ভরে ভরে সোডিয়াম। এদিকে নবীন প্রজন্মের পছন্দের খাবার, তাই তারা তাকে ত্যাগ দিতে প্রস্তুত নয়। সেইজন্য মাঝে মাঝে দোকান থেকে কিনে আর বেশিরভাগ সময়ে আমরা যদি বাড়িতে পিৎজা বানিয়ে নিই, তবে তাদের হৃদয় কখনো হয়ত আমাদের ধন্যবাদ দেবে!  আর কি জানেন? বাড়িতে বানানো পিৎজাতে ঈষ্ট দেওয়ারও দরকার নেই। দারুণ, নয়?

উপকরণ

বাড়িতে পিৎজা বানাতে চাই-

পুরো গমের (Whole wheat) আটা- এক কাপ। আটা ঝুরঝুরে চেহারার (?) হওয়াতে হাতে চেপে চেপে কাপে আটা ভরবেন, যাতে পরিমাণটা সঠিক হয়।

নুন- আধা, বা এক চা চামচ। ( স্বাদমত)।

বেকিং সোডা- দুই চিমটে।

বেকিং পাউডার- আধ চা চামচ।

চিনি- দুই চা চামচ চিনি।

দই- ওপরের উপকরণগুলি মেখে নরম বল বানাতে য্তটা চাই।

অলিভ অয়েল- তিন টেবিল চামচ।

চিলি সস- দুই টেবিল চামচ।

পিৎজা সস বা কেচাপ- দুই টেবিল চামচ।

mozzarella cheese আর cheddar cheese- চার টেবিল চামচ।

গলানো মাখন- দুই চামচ।

টপিংসের জন্য মনমত নিরামিষ বা আমিষ জিনিস ব্যবহার করতে পারেন। আমি নিয়েছি-

বেল পেপার লাল ও হলুদ- সরু, লম্বা করে কাটা।

পালং শাক- কুচোনো।

অলিভ- কয়েকটা।

প্রণালী

পিৎজা বানাতে গেলে প্রথমে আটা, নুন, বেকিং সোডা, বেকিং পাউডার আঙুল দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন।

এবার চিনি দিয়ে পুরোটা ভালো করে মেশান।

দই দিয়ে শুকনো উপকরণগুলি ভালো করে রুটির আটার মত করে মাখুন। আমরা কিন্তু জলের ব্যবহার করব না, তার পরিবর্তে দই দিয়ে ডো (dough) বানাব। আর যেহেতু ঈষ্টের ব্যবহার নেই, তাই দইয়ের ব্যবহার অনিবার্য!

খুব করে মাখতে হবে মিনিট পাঁচেক ধরে। দেখবেন মন্ডটা হাল্কা, চিটচিটে মত হয়েছে।

এবার তেল মিশিয়ে আবার মিনিট পাঁচেক ধরে ঠেসে মাখুন। ( মাখাটা ঠিকমত হওয়া খুব জরুরী)।

এবার মন্ডটাকে দুটো সমান ভাগে ভাগ করে নিন। ( আমরা ৭ ইঞ্চির দুটি পিৎজা বানাবো।

রুটি বানাবার মত করে অংশদুটি শুকনো আটাগুঁড়ো লাগিয়ে বেলে নিন সাত ইঞ্চি ব্যাসার্ধে।

বেকিং পাত্রে তেল লাগিয়ে বেলে নেওয়া পিংজার বেস ( রুটি অংশটা) টা রেখে কাঁটা চামচ দিয়ে তাতে ছিদ্র করুন যাতে তাপ পেয়ে পিৎজাটা ভীষণরকম না ফুলে ওঠে। ছিদ্রগুলো দিয়ে যাতে তাপ নিষ্করণ হতে পারে।

চারপাশে আধা ইঞ্চি জায়গা ছেড়ে সসগুলো পিৎজার বেস এ লাগিয়ে নিন।

চিজ ছিটিয়ে দিন।

টপিংস সাজান।

এবার ৩৫০ ডিগ্রি ফারেনহাইট, মানে ১৭৬.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে মিনিট পনের বেক করুন, বা যতক্ষণ পিৎজার চিজ গলে গিয়ে ক্রাস্টে ( চারিপাশের আধা ইঞ্চি ছাড়া জায়গাতে বাদামী ছোপ লাগছে, ততক্ষণ বেক করুন।

যদি ওভেন না থাকে, তবে একটা গভীর কড়াইয়ে বেশ খানিকটা নুন দিয়ে একটা ধাতুর রিং বা বাটি বসিয়ে তার ওপরে স্টিলের থালায় পিৎজা রেখে, ভালো করে ঢেকে মিনিট দশেক ভাপে রান্না করুন। তারপরে খুলে খুলে দেখবেন যতক্ষণ না পিৎজাটা ভালোভাবে বেক হয়েছে।

banglaadda.com


আপনার মতামত লিখুন :

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ