fbpx
শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:০৩ অপরাহ্ন

সুদের টাকা দিতে না পারায় নির্যাতন

সুমন আহম্মেদ / ৬৪৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বুধবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
সুদের টাকা
সুদের টাকা

81 / 100

সুদের টাকা দিতে না পারায় নির্যাতন। মারপিট করতে করতে বাসা থেকে টেনেহিঁচড়ে মমতাজকে বের করে নেন কয়েকজন, এরপর রাস্তার পাশে গাছে বেঁধে চালানো হয় নির্যাতন। স্কুল পড়ুয়া মেয়ে নির্যাতনের দৃশ্য মুঠোফোনে ধারণ করতে গেলে শুরু হয় তার উপর অত্যাচার। এক পর্যায়ে মায়ের সঙ্গে একই রশিতে আটকে রাখা হয় মেয়েকে। সুদের টাকা।

সুদের টাকা দিতে না পারায় নির্যাতন

তার মেয়ে সময় টিভি কে জানান, তার মা কে যখন রশি দিয়ে বেঁধে ঘর থেকে বের করে নিয়ে যাইতেছিল। তখন সে তার মোবাইল ফোন দিয়ে ছবি আর ভিডিও করতে ছিল, ভিডিও আর ছবি তোলা অবস্থায় তাকে দেখে ফেলে অত্যাচারকারীরা তারপর মায়ের সাথে তাকেও রশি দিয়ে বেঁধে রাখে নির্যাতনকারীরা।

সুদের টাকা

সুদের টাকা

মমতাজ আরো জানান, নির্যাতনকারীগুলো হলো মুক্তা, শিল্পী আরো হলো গফুরের বউ কুসুম সাথে গফুর ছিল আরো গফুরের ছেলে রিপন তারিফের মা সহ বেশ কয়েকজন। সবাই একসাথে মিলে থাকে একের পর এক নির্যাতন করে এবং রশি দিয়ে গাছের সাথে তাকে আর তার মেয়েকে বেঁধে রাখে পরে গ্রামের মেম্বার এসে রশি খুলে দেয়।

বৃহস্পতিবার সকালে কালিয়াকৈর সিরাজপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এরপরে স্বজনরা জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯ এ ফোন করলে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি গিয়ে তাদেরকে উদ্ধার করেন। ওইদিন বিকেলেই ৮ জনের নাম উল্লেখসহ বেশ কয়েকজনকে অজ্ঞাত আসামি দিয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন ভুক্তভুগী পোশাক শ্রমিক। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনায় দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন স্থানীয়রা।

স্থানীয় একজন লোকের কাছ থেকে জানা যায় গ্রামীণ সালিশে বসে মমতাজকে এক মাসের সময় দেওয়া হয়েছিল একমাস পর মমতাজ তাদের টাকা দিয়ে দিবে বলে সিদ্ধান্ত হয় পরে তারাও মেনে সেখান থেকে চলে আসেন কিন্তু সালিশের একদিনের পরিচয়েই ঘটনা ঘটায় নির্যাতনকারীরা।

এবং মমতাজের ভাই ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে থানার ওসিকে জানান কিন্তু তার ভাইয়ের কথা ওসি সাহেব আমলে নেয়নি। ঘটনার সঙ্গে জড়িত সবুজ নামের একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে জানিয়ে পুলিশ বলেছে বাকিদের ধরতে তৎপরতা চলছে। পুলিশ জানান সবুজই নাকি এই ঘটনার মূল হোতা আর এই ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হবে বলে পুলিশ জানায়। দেড় মাস আগে প্রতিবেশী গফুরের স্ত্রী কুলসুম এর কাছ থেকে ১৭,000 টাকা সুদে নেন মমতাজ।সম্প্রতি গ্রাম্য শালিসে টাকা ফেরত দিতে সময় বেঁধে দেওয়া হয় কিন্তু এর আগেই এমন নির্যাতনের শিকার হন তারা।সুদের টাকা।

পুকুরে শিং মাছ চাষ করলে অধিক লাভ দেখে নিন কিভাবে চাষ করা হয়

দেশি মুরগি পালনের আয় ব্যয় হিসাব জেনে নিন ১০০ পিস

ফেসবুকে যুক্ত হউন


আপনার মতামত লিখুন :

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ