fbpx
শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:২৪ অপরাহ্ন

পুকুরে শিং মাছ চাষ করলে অধিক লাভ দেখে নিন কিভাবে চাষ করা হয়

আসিফ / ১০০৫ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী, ২০২১
পুকুরে শিং মাছ চাষ
পুকুরে শিং মাছ চাষ

81 / 100

পুকুরে শিং মাছ চাষ, গ্রামবাংলার মিঠা পানির মাছ বলে পরিচিত শিং মাছ। কিন্তু খাল-বিল হাওর-বাঁওড় নদী-নালা শুকিয়ে যাওয়ার কারণে এই মাছ হারিয়ে যেতে বসেছে। কিন্তু আমাদের মৎস্য বিজ্ঞানী ও হ্যাচারি খামারিদের অক্লান্ত পরিশ্রমের মাধ্যমে এই মাছের পোনা কৃত্তিম ভাবে উৎপাদন করা হচ্ছে। উৎপাদিত মাছ সারাদেশের মৎস্যচাষীদের কাছে পাঠানো হচ্ছে।যারা পুকুরে লালন-পালন করে তুলে দিচ্ছেন শিং মাছ প্রেমী মানুষের খাবার টেবিলে।

পুকুরে শিং মাছ চাষ

পুকুরে শিং মাছ চাষ

পুকুরে শিং মাছ চাষ

মৎস্যচাষী আহসান হাবীব নওগাঁ জেলায় মহাদেব উপজেলায় ৯ বিঘা  পুকুরে শিং মাছ চাষ চাষ করেছেন। তিনি জানান শ্রাবণ মাসে ২৫ হাজার টাকা দিয়ে ৫ কেজি শিং মাছের রেণু পোনা ক্রয় করেন। তারপর পার্শ্ববর্তী পুকুরে এক থেকে দেড় ইঞ্চি আকার তৈরি করে তিনটি পুকুরে ছারেন এবং লালন পালন করতে থাকেন।

খাবার হিসাবে বাজারে বিভিন্ন ফিড কিনতে পাওয়া যায়। পোনা থেকে শুরু করে মাছ বড় হওয়ার পর্যন্ত মাছের আকার অনুযায়ী খাবার দেওয়া হয়। আকার অনুযায়ী মাছকে পাউডার, ৫ মিলি , ১ মিলি,২ মিলি পযর্ন্ত ওজনের খাবার দেওয়া হয় বলে জানান আহসান হাবিব। রেণুপোনার সময় ডাস্ট খাওয়াতে হয়। এটা পাউডার জাতীয় খাবার। এটা শুটকির গুরা, চালের গুরা,ভুট্টার গুরা থেকে তৈরি হয়।এগুলো পানির সাথে মিশিয়ে। এরপর ধাপে ধাপে খাবারের ওজন বাড়ানো হয়। শিং মাছ শব্দে ভয় পায় বলে রাতে খাবার খাওয়ানো ও মাছ ধরা হয়।

 

পুকুরে শিং মাছ চাষ করলে শিং মাছ বড় হতে ছয় থেকে সাত মাস সময় লাগে। ৬ থেকে ৭ মাসের মধ্যে শিং মাছ বাজারজাত করা যায়। তিনি আরো জানান শিং মাছ চাষ করতে বেশি সমস্যা হয় না। কিন্তু মাছের শরীরের ক্ষত রোগ দেখা দিতে পারে এবং পুকুরে গ্যাস হয়ে মাছের পেট ফুলে মারা যেতে পারে। সেজন্য তিনি প্রতি ১৫ থেকে ২০ দিন পর পর শতাংশ প্রতি ২০০গ্রাম চুন এবং ২০০ গ্রাম লবণ ব্যবহার করে থাকেন।

এছাড়া রোগ বালাই দূর করার জন্য বালাইনাশক হিসেবে প্রতি একর হারে ৫০০ মিলি এক্টিভ্রু এবং কাদের জন্য প্রতি একরে ৫ কেজি করে জুয়েলাইট ব্যবহার করা হয়।পুকুরে শিং মাছ চাষ করলে ৫ কেজি শিং মাছ ছাড়া থেকে শুরু করে এটি ছয় থেকে সাত মাস লালন করতে প্রায় চার থেকে পাঁচ লাখ টাকা খরচ হয়। ইতিমধ্যে মাছ বিক্রি শুরু হয়েছে। ১৭ থেকে ১৮ টি মাছে এক কেজি হচ্ছে। বর্তমানে প্রতি মন মাছ ১৫ থেকে ১৬ হাজার টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। তার ধারণা ৯ বিঘা পুকুর থেকে শুধু শিং মাছ বিক্রি করে সমস্ত খরচ বাদে তিনি পাঁচ লাখ টাকা আয় করতে পারবেন। পুকুরে শিং মাছ চাষ করা খুবই সহজ।

 

নতুন যারা শিং মাছ চাষ করতে চায় তাদের উদ্দেশ্যে আহসান হাবীব বলেন একটি লাভজনক ব্যবসা। ভালো করে চাষ করতে পারলে লাভজনক মাছের মধ্যে এটি সবচেয়ে ভালো। তবে বন্যার পানি যেন পুকুরের ভেতরে আসতে না পারে। তাই পুকুরের পাড় ভালো করে বাধতে হবে। পুকুরে ছিদ্র থাকলে কিংবা গর্ত থাকলে শিং মাছ অন্যত্র চলে যেতে পারে। তাছাড়া শিং মাছ চাষ করার আগে অবশ্যই পুরাতন চাষীদের সাথে আলোচনা করে তারপর ঠিক মত কাজ করতে হবে। নইলে ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকতে পারে।

এছাড়াও মৎসবিজ্ঞানীদের ও পরামর্শ নিতে হবে। লক্ষণীয় বিষয় হচ্ছে অন্যান্য মাছ জাল টেনে ধরা গেলেও শিং মাছ দিনের বেলা জাল টেনে ধরা অনেক কঠিন হয়ে পারে । কারণ এ মাছ গুলি একটু শব্দ পেলেই কাদা নিচে চলে যায়। তাই শেষ রাতে পুকুর সেচ দিয়ে অথবা আস্তে আস্তে জাল টেনে মাছ ধরতে হয়। একটু কষ্টসাধ্য হলেও এটা একটা লাভজনক ব্যবসা। আপনিও যদি শিং মাছ চাষ করতে চান তাহলে পুরাতন চাষী ও মৎস্যজীবীদের সাথে আলোচনা ও পরামর্শ করে নিবেন। ধন্যবাদ ।।।

দেশি মুরগি পালনের আয় ব্যয় হিসাব জেনে নিন ১০০ পিস

ফেসবুকে যুক্ত হউন


আপনার মতামত লিখুন :

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ