1. mdasif669638@gmail.com : Md Asif : Md Asif
  2. admin@banglafeature.com : বাংলা ফিচার : Alamgir Hossain
  3. mdr93557@gmail.com : Rasel Miah : Rasel Miah
  4. sumonahammed714@gmail.com : Sumon Ahammed : Sumon Ahammed
  5. taifurislam94040@gmail.com : Taifur Islam : Taifur Islam
ড্রাগন ফলের পুষ্টিগুন ও উপকারিতা - নিউজ বাংলা। বাংলা ফিচার
শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:৪৬ পূর্বাহ্ন

ড্রাগন ফলের পুষ্টিগুন ও উপকারিতা

তাইফুর ইসলাম
  • Update Time : শনিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৮৭২ Time View
ড্রাগন ফলের পুষ্টিগুন ও উপকারিতা
ড্রাগন ফলের পুষ্টিগুন ও উপকারিতা
83 / 100

প্রিয় বন্ধুগন আজকে আপনাদের জানাবো একটি ফল যা আপনার সমস্ত রোগের প্রতিকার করতে সক্ষম। ড্রাগন ফলের পুষ্টিগুন। ফলটির নাম হলো ড্রাগন। এটি একটি বিদশী ফল। ক্যাকটাস গোত্রের ড্রাগন ফল বাংলাদেশের তেমন প্রচলিত না হলেও সারা পৃথিবীতে অনেক জনপ্রিয় একটা ফল। এই ফলটা কয়েক রঙের হয়ে থাকে। ড্রাগন ফলের ৩ টি প্রজাতি রয়েছে। তার মধ্যে লাল প্রতির ফল বাংলাদেশের সবথেকে বেশি দেখা যায়। মিষ্টি স্বাদের ড্রাগন ফল আমাদেরকে হার্টঅ্যাটাক ডায়াবেটিসের মতো রোগ থেকে মুক্ত রাখার পাশাপাশি শরীর স্লিম রাখতেও সাহায্য করে। ড্রাগন ফলের পুষ্টিগুন আরো অনেক রয়েছে।

ড্রাগন ফলের পুষ্টিগুন

এক নম্বরের পুষ্টিতে ভরপুর ড্রাগণ। ড্রাগণ ফল কম ক্যালরিযুক্ত তবে প্রয়োজনীয় ভিটামিন এবং খনিজ পদার্থে ভরপুর। এটিতে প্রচুর পরিমাণে ডায়েটারি ফাইবার রয়েছে। এক কাপা ২২৭ গ্রাম ড্রাগনে কি কি পরিমাণে পুষ্টিগুণ রয়েছে সেগুলো এখানে বলা হলো :-

***ক্যালরি রয়েছে ১৩৬ গ্রাম, প্রোটিন ৩ গ্রাম,
ফ‍্যাট একেবারেই নেই,
কার্বোহাইড্রেট ২৯ গ্রাম,
ফাইপা ৭ গ্রাম,
আয়রন দৈহিক চাহিদা ৮%, ম্যাগনেসিয়াম দৈহিক চাহিদার ১৮%,
ভিটামিন-সি দৈহিক চাহিদার ৯%,
ভিটামিন -ই দৈহিক চাহিদার ৪%, প্রয়োজনীয় পুষ্টির ফলে  পলিফেনল,ক্যারোটিনয়েডস এবং বিটা কারেন্টের মত উপকারী উপাদান গুলো সরবরাহ করে।

ড্রাগন ফলের পুষ্টিগুন ও উপকারিতা

ড্রাগন ফলের পুষ্টিগুন ও উপকারিতা

দুই নাম্বারের দুরারোগ্য ব্যাধি সারাতে পারে ড্রাগণ। ড্রাগণ ফল অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ হওয়ায় অস্থির ফ্রিরেডিকেল অনু যা কোষের ক্ষতি করে এবং রোগ সৃষ্টি করে তা সেগুলোর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারে। এন্টিঅক্সিডেন্ট গুলি  ফ্রিরেডিকেল গুলিকে নিহত করে দেয় এবং এভাবেই কোষের ক্ষতি এবং প্রতিরোধ করে।ড্রাগন ফলের পুষ্টিগুন আরো অনেক রয়েছে।

গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে নিত‍্যকার ডায়াটে এন্টিঅক্রিডেন্ট সমৃদ্ধ খাবার থাকলে সেটা হৃদরোগ, ক্যান্সার ডায়াবেটিস এবং বাতের মত দীর্ঘস্থায়ী রোগ প্রতিরোধে সহায়তা করতে পারে।

৩ নাম্বারে ফাইবার সমৃদ্ধ ড্রাগণ। যার যথেষ্ট পরিমাণ স্বাস্থ্য বেনিফিট রয়েছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় মহিলাদেরকে প্রতিদিন ২৫ গ্রাম পুরুষদের ৩৮ গ্রাম ফাইবার গ্রহণের পরামর্শ দেয়। গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে এটি হৃদরোগ টাইপ টু ডায়াবেটিস এবং ওজন নিয়ন্ত্রণে ভূমিকা রাখে। কিছু  গবেষণায় দেখা গিয়েছে উচ্চ ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার কোলন ক্যান্সারের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারে। এর মধ্যকার উচ্চ ফাইবার পেটের অস্থিরতা এবং হজম প্রক্রিয়াকে সহজ করে। ড্রাগন ফলের পুষ্টিগুন আরো অনেক রয়েছে।

চার নম্বরের অন্ত্র সুরক্ষিত রাখে। আপনার অন্তর ৪০০ টির ও বেশি প্রজাতির ব্যাক্টেরিয়ার সহ প্রায় ১০০ ট্রিলিয়ন নানা রকমের মাইক্রোঅরগানিজ রয়েছে। অনেক গবেষক বিশ্বাস করেন যে অনুর ন‍্যায় অগ্রানিজম আপনার স্বাস্থ্যের উপর বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে। ড্রাগন ফলে প্রাকৃতিক উপাদান রয়েছে যেগুলো আপনার অন্ত্রের অনেক ভালো ব্যাকটেরিয়ার ভারসাম্যকে উন্নত করতে পারে।ড্রাগন ফলের পুষ্টিগুন আরো অনেক রয়েছে।

৫ নাম্বারে ইউনিট সিস্টেম শক্তিশালী করে। দাঁতের বিভিন্ন ফ্যাক্টর এর উপরে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা নির্ভর করে। ড্রাগন ফলের ভিটামিন-সি এবং ডায়োটিনেট গুলো রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তোলে এবং শ্বেত রক্তকণিকার ক্ষতিরোধকের মাধ্যমে সংক্রমণ রোধ করতে পারে। আপনাদের সিস্টেমের শ্বেত রক্তকণিকা গুলির ক্ষতিকারক পদার্থ কে আক্রমণ করে এবং ধ্বংস কারে। শ্বেত রক্তকণিকা গুলি ফ্রিরেডিকেল দ্বারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়। শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ভিটামিন সি এবং ক্যারোটিনয়েড ফ্রিরেডিকেল গুলিকে নিরপেক্ষ করে দেয় এবং শ্বেত রক্তকণিকাকে সুরক্ষিত রাখে।

৬ নাম্বারে ড্রাগন আপনার রক্তে আয়রনের পরিমাণ বারিয়ে দেয় এবং শরীরে অক্সিজেন পরিবহনের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এটি খাদ‍্যকে শক্তিতে রুপান্তর করার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।
দুভাগ‍্য ক্রমে অনেকের শরীরে আয়রনের ঘাটতি রয়েছে।

ড্রাগন ফল আয়রনের ঘাটতি পূরণের জন্য বিকল্প হতে পারে। কারণ এতে দৈনিক চাহিদা ৮ % আয়রন থাকে এবং পর্যাপ্ত ভিটামিন সি রয়েছে যা আপনার শরীরের আয়রন শোষণে সাহায্য করে।

৭ নাম্বারে ম‍্যাগনেসিয়ামের উৎস  ড্রাগন। এ ফলে দৈহিক চাহিদা ১৮% ম্যাগনেসিয়াম সরবরাহ করে। গড়ে আপনার মোটামুটি  পরিমাণের  ভালো পরিমানের ম‍্যাগনেসিয়াম পেয়ে যান। আপাতত দৃষ্টিতে সামান্য পরিমাণ হলেও এ খনিজ পদার্থটি আপনার শরীরের প্রতিটি কোষে উপস্থিতি এবং আপনার দেহের মধ্যকার ৬০০ টির ও  বেশি গুরুত্বপূর্ণ রাসায়নিক বিক্রিয়ার অংশ নেয়।

ড্রাগন একটি গ্রীষ্মমণ্ডলীয় ফল যা চমৎকার স্বাদ যুক্ত এবং প্রয়োজনীয় পুষ্টি বিপাক এর ফাইবার এবং উপকারী উদ্ভিদ কমপ্লেক্স সমৃদ্ধ।

আপনি যদি আপনার ডায়াটে কিছু বৈচিত্র যুক্ত হতে চান তাহলে ড্রাগনের কোনো বিকল্প নেই। তাছাড়া এটি আপনার খাবার টেবিলে আরও রঙিন করে তুলবে।

পুকুরে শিং মাছ চাষ করলে অধিক লাভ দেখে নিন কিভাবে চাষ করা হয়

দেশি মুরগি পালনের আয় ব্যয় হিসাব জেনে নিন ১০০ পিস

ফেসবুকে যুক্ত হউন

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2019 Banglafeature
Theme Customized BY LatestNews